তামিলনাড়ুর পঞ্চায়েত ভোটে বিজেপি প্রার্থী পেয়েছেন মাত্র ১টি ভোট, ট্যুইটারে ট্রেন্ডিং #Single_Vote_BJP



বি.বি নিউজ ডিজিটাল ডেস্কঃতামিলনাড়ুর পঞ্চায়েত নির্বাচনে এক বিজেপি প্রার্থী ভোট পেয়েছেন মাত্র একটি। যদিও ওই প্রার্থীর পরিবারের ভোটার সংখ্যাই পাঁচ জন। এই খবর প্রকাশ‍্যে আসার পর থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় রসিকতা শুরু হয়েছে। ট‍্যুইটারে #Single_Vote_BJP হ‍্যাশট‍্যাগ দিয়ে ট্রেন্ডিং চলছে।

তামিলনাড়ুর কোয়েম্বাটুরের পেরিয়ানাইকেনপালয়াম (Periyanaickenpalayam) ইউনিয়নের কুরুদামপালায়াম (Kurudampalayam) পঞ্চায়েতের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপির হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন ডি কার্তিক নামের এক ব‍্যক্তি। বিজেপির যুব নেতা হিসেবে পরিচিত কার্তিক নিজের প্রচারে ব‍্যাপক জোর দিয়েছিলেন কার্তিক।

দলের সভাপতি জে পি নাড্ডা, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ছবি যুক্ত পোস্টার এবং দলীয় পতাকায় এলাকা ছেয়ে ফেলেছিলেন তিনি। কিন্তু ভোট গণনার পর দেখা গেল মাত্র একটি ভোট পেয়েছেন তিনি। আরো অবাক করার বিষয় তাঁর পরিবারেই পাঁচজন ভোটার রয়েছেন।

ফলাফল নিয়ে রীতিমতো ট্রোলের মুখে পড়েছেন বিজেপি নেতা কার্তিক। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিক মিম ঘুরছে। ট‍্যুইটারে ট্রেন্ডিংয়ে রয়েছে #Single_Vote_BJP। এই প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত এই হ‍্যাশট‍্যাগ ব্যবহার করে প্রায় সাড়ে ৩২ হাজার ট‍্যুইট হয়েছে।

এক ট্যুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, ডি কার্তিক নিজের নির্বাচনী প্রচারের জন্য যে পোস্টারগুলি প্রকাশ করেছিলেন, সেগুলিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ সহ মোট সাতজনের ছবি ছেপেছিলেন। অথচ ভোট পেলেন মাত্র ১!

কবি তথা সমাজকর্মী মীনা কান্দাসামীও ট‍্যুইটারে এই ফলাফলের একটি স্ক্রিনশট শেয়ার করে লিখেছেন, “লোকাল বডি নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী মাত্র একটি ভোট পেয়েছেন। তাঁর পরিবার পাঁচ সদস্যের। তাঁর পরিবারের বাকি সদস্য যারা অন‍্য কাউকে ভোট দিয়েছেন, তাঁদের জন্য গর্বিত।”

যদিও ডি কার্তিক জানিয়েছেন, তিনি বিজেপির নয়, বরং গাড়ি চিহ্নে ভোটে লড়ে নির্দল প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। তাই আমাকে বিজেপি প্রার্থী হিসেবে যেভাবে তুলে ধরা হচ্ছে, তা ভুল।

error: