মধ্যপ্রদেশের ব্যক্তি ‘তাজমহল’ উপহার দিলেন স্ত্রীকে!



বি.বি নিউজ ওয়েবডেস্ক: এ কালের বাদশাহ শাহজাহান? প্রায় সেরকমই। স্ত্রীকে উপহার দিতে চেয়েছিলেন খোদ সপ্তম আশ্চর্য তাজমহলের মতো এক বাড়ি। দিলেনও।

স্ত্রীকে নিয়ে তাজমহল দেখতে গিয়েছিলেন স্বামী। ব্যস! তাজমহলের সৌন্দর্যে মুগ্ধ স্বামী সেখানে দাঁড়িয়েই ঠিক করে ফেললেন, স্ত্রীকে এমনই একটি বাড়ি উপহার দেবেন তিনি। কিন্তু তাজমহলের মতো উঁচু বাড়ি বানানোর অনুমতি পেলেন না। তবে দমে যাননি। শেষ পর্যন্ত তাজমহলের আদলেই একটি বাড়ি বানিয়ে স্ত্রীকে উপহার দিয়ে চমকে দিলেন সকলকে। এ কালের এই শাজাহানের নাম আনন্দপ্রকাশ। তাঁর বাড়ি মধ্যপ্রদেশের বুরহানপুরে। পেশায় শিক্ষাবিদ।

আনন্দপ্রকাশ ও তাঁর স্ত্রী তাজমহল দেখতে গিয়েছিলেন। তখনই আনন্দপ্রকাশ মনে মনে এই সিদ্ধান্ত নেন। ফিরে এসে তাজমহলের স্থাপত্য নিয়ে পড়াশোনা করেন। নির্মাণশিল্পীদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁদেরও তাজমহলের স্থাপত্য নিয়ে খুঁটিনাটি তথ্য সংগ্রহ করতে বলেন।

শেষ পর্যন্ত তৈরি হয়ে ওঠে বাড়িটি। বাড়িটির নির্মাণে যুক্ত স্থাপত্যবিদ প্রবীণ চৌকশ বলেন, বাড়িটি ৯০ বর্গমিটার প্রশস্ত, তবে এর মূল কাঠামো ৬০ বর্গমিটার জুড়ে, উচ্চতা ২৯ ফুট। এতে অনেক মিনার রয়েছে। বাড়িটির দু’টি তলায় দু’টি শোওয়ার ঘর। আছে রান্নাঘর, গ্রন্থাগার ও যোগাসনের ঘর।

আনন্দপ্রকাশ প্রথমে নির্মাণশিল্পীদের ৮০ ফুট উঁচু বাড়ি বানাতে বলেছিলেন। তবে এই উচ্চতার বাড়ি বানানোর অনুমতি মেলে না। উচ্চতা কম হলেও তিনি তাজমহলের আদলেই বাড়ি বানাবেন বলে সিদ্ধান্ত নেন। শেষপর্যন্ত সেই বাড়ি তৈরি হল। বাড়িটি বানাতে সময় লেগেছে তিন বছর।

error: