নতুন করে মামলার গেরোয় উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার কয়েকটি মাদ্রাসা



বিবি নিউজ ডেস্কঃ সমস্যায় জর্জরিত মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের ট্রান্সফার। বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে হেডমাস্টার এর অগোচরে বহু মাদ্রাসা কমিটি নিয়োগ দিয়ে শিক্ষকদের বিপদের সামনে দাঁড় করিয়েছে। বীরভূম থেকে হাওড়া। উত্তর ২৪ পরগণা থেকে মালদা, বারবার খবর আসছে। কমিশনের রিকমেন্ডেশন নিয়ে শিক্ষক যখন তার পছন্দের মাদ্রাসায় আসছেন। তখন শুনছেন অন্য কোনো ভুতুড়ে শিক্ষক জয়েন্ট করে আছে। অনেকে না জেনে জয়েন্ট করে পরে বুঝতে পারছেন। তখন আর কিছু করার থাকছে না।

এই পরিস্থিতিতে এবার নতুন সমস্যা হাজির হল কলকাতা হাইকোর্টের মামলায়। আজ কলকাতা হাইকোর্ট থেকে সুনির্দিষ্ট ভাবে তথ্যপ্রমাণ হাতে আসলো বিবি নিউজের। সেখানে উত্তর ২৪ পরগনার মুরারিশাহ চৌমাথা আমিনিয়া হাই মাদ্রাসায় দুইটা পোস্ট চেয়ে দুই শিক্ষক মামলা ঠুকে দিলেন। একটি বাংলা পাশ অপরটি এডভ্যানস এরাবিক থিওলজি পাশ। এই দুইটা পোস্ট মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের ওয়েবসাইটে আছে। এখন অজান্তে যদি কোনো শিক্ষক নিয়ে নেন তিনি মামলার যাতাকলে জড়িয়ে পড়তে পারেন।

উক্ত জেলার কাদেরিয়া হাই মাদ্রাসার জিওগ্রাফি অনার্স পিজি পোস্টে মামলা হয়েছে। দক্ষিণ ২৪ পরগনার চালতা বেড়িয়া হাই মাদ্রাসার ইতিহাস অনার্স পিজি পোস্টেও মামলা শুরু হল।

এই ভাবে অনিশ্চয়তার ভিতর দিয়ে শুরু হচ্ছে আগামীকাল থেকে মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশনের ট্রান্সফার।

error: