দাঁড়ি কাটতে নরেন্দ্র মোদিকে ১০০ টাকা পাঠালেন মহারাষ্ট্রের চাওয়ালা



বি.বি নিউজ ওয়েবডেস্কঃ এক চাওয়ালা চান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবার দাড়ি কেটে ফেলুন। দাড়ি কাটার খরচও বহন করতে রাজি তিনি। ১০০ টাকার মানি অর্ডারও করেছেন মোদিকে। এই চা বিক্রেতা মহারাষ্ট্রের বারামতীর বাসিন্দা। কোভিড জনিত লকডাউনে অসংগঠিত ক্ষেত্রগুলি তীব্রভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে গত দেড় বছর ধরে।

সেই ক্ষোভ থেকে অনিল মোরে নামে এই চাওয়ালা বলেন– প্রধানমন্ত্রী তাঁর দাড়ি বাড়িয়েছেন। যেটা বাড়ানো উচিত ছিল তা হল দেশের বিপুল সংখ্যক মানুষের কর্মসংস্থানের পরিসরকে। সকলকে করোনার টিকা দেওয়ার প্রক্রিয়া আরও গতিশীল করার উদ্যোগ নেওয়া দরকার এবং চিকিৎসা ব্যবস্থাকে আরও উন্নত করা প্রয়োজন। প্রধানমন্ত্রীকে অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে– গত দুই লকডাউনে মানুষ যে দুর্বিষহ অবস্থার মধ্যে পড়েছে তা থেকে তাদের মুক্তি দেওয়া।

ইন্দপুর রোডের পাশে এক বেসরকারি হাসপাতালের সামনে ছোট চা দোকান অনিলের। তাঁর আরও দাবি– প্রধানমন্ত্রীত্ব দেশের সর্বোচ্চ পদ। পাশাপাশি বলেন–‘আমাদের প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমার পূর্ণ শ্রদ্ধা রয়েছে। আমি আমার জমানো টাকা থেকে ১০০ টাকা পাঠাচ্ছি যাতে তিনি তাঁর দাড়ি কাটতে পারেন।

তিনি সর্বোচ্চ নেতা। তাঁকে আঘাত দেওয়ার কোনও ইচ্ছা আমার নেই। অতিমারির কারণে দিনে দিনে যেভাবে সাধারণ মানুষের সমস্যা বাড়ছে তাতে এইভাবেই তাঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করা ছাড়া অন্য উপায় নেই। মোদিকে লেখা এক চিঠিতে অনিলের বক্তব্য– কোভিডে মৃতদের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা করে দেওয়া হোক এবং লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলিকে ৩০ হাজার করে টাকা সাহায্য দিক কেন্দ্র সরকার।

error: