“ইডি, সিবিআইকে সীমান্তে পাঠানো উচিত”: ফের শিবসেনার নিশানায় কেন্দ্র



বি.বি নিউজ ওয়েবডেস্ক, নভেম্বর ৩০, ২০২০ঃমহারাষ্ট্রের ক্ষমতাসীন শিবসেনা সরকার তাদের পুরনো সহযোগী বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করল। কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থাকে অপব্যবহারের অভিযোগ তুলে বিজেপির উদ্দেশে তির্যক মন্তব্য করে শিবসেনা। শিবসেনার বক্তব্য, ইডি এবং সিবিআইকে জম্মু-কাশ্মীরে অনুপ্রবেশকারী উগ্রপন্থীদের সামলাতে সীমান্তে পাঠানো উচিত। দিল্লিতে আন্দোলনরত কৃষকদের সঙ্গে কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যবহার দেূেই শিবসেনা বিজেপিকে আক্রমণ করে। শিবসেনার বক্তব্য, ‘আন্দোলনরত কৃষকদের ওপর দিল্লির মতো ঠাণ্ডায় ওয়াটার ক্যানন ব্যবহার করা হিংস্রতা।’

বিজেপির পক্ষ‌ থেকে আন্দোলনরত কৃষকদের ‘খালিস্তানী’ তকমা দেওয়ার বিরোধিতা করে শিবসেনা তার মুখপত্রে লিখেছে, “বিজেপি কেবল দেশের পরিবেশই নষ্ট করছে না, এটি স্বৈরাচারী ব্যবস্থাকেও ফিরিয়ে আনছে। খালিস্তান টপিকটি অনেকদিন আগে মিটে গেছে এবং এর জন্য ইন্দিরা গান্ধী এবং জেনারেল অরুণ বৈদ‍্যকে তাঁদের প্রাণ দিতে হয়েছিল। তবে বিজেপি আবার এই বিষয়টিকে ফিরিয়ে আনতে চায় এবং এনিয়ে পাঞ্জাবে রাজনীতি করতে চায়। এটি যদি স্ফুলিঙ্গের সৃষ্টি করে তবে তা দেশে জন্য বিপর্যয়কর হবে।”

শিবসেনা মুখপত্র ‘সামনা’য় গুজরাটে সর্দার প্যাটেলের মূর্তির উল্লেখ করে বলে, ইংরেজেদের বিরুদ্ধে কৃষক আন্দোলনে সর্দার প্যাটেল নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। বর্তমানে কৃষকদের সঙ্গে সরকারের ব্যবহার দেখে ওনার মূর্তি এখন কাঁদছে।’

‘সামনা’র সম্পাদকীয়তে বিরোধী দলের বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় এজেন্সিকে অপব্যবহারের অভিযোগের বিষয়ে মন্তব্য করে, ‘সরকার ভাবছে বিরোধীদের আটকাতে তারা সিবিআই বা ইডিকে ব্যবহার করতে পারে। এজেন্সিকে তাঁদেরক্ষমতা দেখানোর সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু সব সময় গুলি কাজে আসে না। দিল্লি সীমান্তে কৃষি বিলের বিরুদ্ধে আন্দোলনকারী কৃষকদের উগ্রপন্থী বলছে। কিন্তু আসন উগ্রপন্থীরা তো জম্মু-কাশ্মীর সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশ করছে। এই সময় ইডি এবং সিবিআইকে সীমান্তে পাঠানো উচিত। এ ছাড়া দ্বিতীয় কোনও পথ নেই।’

error: