আমরা ক্ষমতায় এলে গোটা দেশে ফ্রিতে রেশন দেবো, বেকারদের চাকরি হবে: মমতা ব্যানার্জি



বি.বি নিউজ ৩৬৫ ডেস্ক: একুশের নির্বাচনে রাজ্যে বড় জয় পেয়েছে তৃণমূল। বিজেপিকে পর্যদুস্থ করে টানা তৃতীয় বার মুখ্যমন্ত্রী পদে বসেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার রাজ্যের শাসকদলের পাখির চোখ চব্বিশের লোকসভা নির্বাচন। কেন্দ্রের মোদি সরকারকে হারাতে ইতিমধ্যেই নানান পদক্ষেপ শুরু করেছে তৃণমূল।

গতকাল শহিদ দিবস উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল মাধ্যমে ভাষণ দেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যের পাশাপাশি সর্বভারতীয় স্তরেও দেখানো হচ্ছে। একাধিক রাজ্যে জায়ান্ট স্ক্রিন বসিয়ে তৃণমূল নেত্রীর বক্তব্য পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়।

বিজেপিকে আক্রমণ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মেডিসিন, ভ্যাকসিন দিচ্ছে না। মৃতদেহও সৎকার করতে দিচ্ছে না। কোভিড রুখে আজকে বাংলা দেখিয়ে দিয়েছে। একসঙ্গে কাজ করার জন্য জোট বাঁধুন। একসঙ্গে লড়াই করতে হবে। দিন নষ্ট করা যাবে না রোগ সারাতে শীঘ্র চিকিৎসা শুরু করতে হবে। তিনদিন দিল্লিতে যাব। সকলের সঙ্গে বৈঠকেও বসতে চাইব। বিজেপি যত অত্যাচার করেছেন আমার মা-বোনেরা তার প্রতিবাদ করেছেন। আমাদের সমর্থন করেছেন তাই আপনাদের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

এরপর তিনি বলেন, ভারত উন্নয়ন চায়। ভারত শক্ত অর্থনীতি চায়। ভারত কৃষক, শিশু, মহিলা, দরিদ্রদের উন্নয়ন চায়। বিজেপি কিছু করছে না। আপনি কটা দেশে বিনামূল্যে রেশন দেন প্রধানমন্ত্রী? আমাদের জোট ক্ষমতায় এলে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে। পশ্চিমবঙ্গে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হয়। পশ্চিমবঙ্গে বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা দেওয়া হয়।

কেন্দ্র সরকারকে তীব্র আক্রমণ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও আরও বলেন, বেকারত্ব বাড়ছে। অর্থনীতির অবস্থা খারাপ। কৃষকরা কাঁদছে। কেন তিনটে কৃষি আইন এনেছেন? বিজেপি মানবাধিকার জানে না। বিজেপির মগজে মরুভূমি। গোলি, গুলি আর গালির পলিটিক্স চলছে। সুপ্রিম কোর্টের কাছে অনুরোধ করব দয়া করে দেশকে বাঁচান।

বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ব্যর্থতার অভিযোগ তুলে মমতা বলেছেন, পুরো দেশে এখন বেকারত্ব-হিংসার জেরে হতাশা। আমরা নতুন সরকারের নামে নতুন আলো আনব। সরকারের পরিচয় কাজে, মন কি বাতে নয়।’

error: