টিকাকরণের হারে দেশের মধ্যে প্রথম কলকাতা! জানাচ্ছে সমীক্ষা



বি.বি নিউজ ওয়েবডেস্কঃ দেশে এখন চলছে টিকাকরণ। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য একমাত্র টিকাকরনই মানুষকে নিরাপদ রাখতে পারে করোনার বিরুদ্ধে। এদিকে করোনার তৃতীয় তরঙ্গের আসার কথা শোনা যাচ্ছে অনেক বিশেষজ্ঞের মুখেই। এরই পরিপ্রেক্ষিতে একটি সমীক্ষায় জানা গেল টিকাকরণের হারে দেশের মধ্যে ফার্স্ট ক্লাস ফার্স্ট আমাদের কলকাতা।

সমীক্ষাটি হয়েছে কো-উইন ড্যাশবোর্ড ও হার্ভাড বিশ্ববিদ্যালয়ের জিওগ্রাফিক ইনসাইটস ডেটাভার্সের পক্ষ থেকে, যা টুইট করে জানিয়েছে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে। সমীক্ষায় দেখা গেছে মোট ৬১.৮ শতাংশ কলকাতাবাসী করোনা প্রতিষেধকের প্রথম ডোজটি পেয়ে গেছেন। পাশাপাশি কলকাতার মোট ২১ শতাংশ মানুষ ইতিমধ্যেই প্রতিষেধকের দুটি ডোজ গ্রহণ করেছেন।

এরপর এই জায়গা করে নিয়েছে বেঙ্গালুরু। সেখানকার মোট ৫৭.৮ শতাংশ মানুষ প্রথম ডোজ এবং ১৪ শতাংশ মানুষ দ্বিতীয় ডোজ পেয়ে গেছেন। দিল্লি ও মুম্বাইতে করোনা ব্যাপক হারে ছড়িয়েছিল। কিন্তু এই দুটি শহরই টিকা দানের নিরিখে পিছিয়ে আছে। দিল্লিতে মাত্র ৩৫.১ মানুষ পেয়েছেন প্রথম ডোজ আর ১১.১ মানুষ পেয়েছেন দ্বিতীয় ডোজ। পাশাপাশি মুম্বাইয়ের টিকাকরণের হারও খুব আশাপ্রদ নয়। এখানকার ৫১.১ শতাংশ মানুষ পেয়ে গেছেন প্রতিষেধকের প্রথম ডোজ। আর দ্বিতীয় ডোজ ১৫.৭ শতাংশ।

এদিকে এই চিত্র সামনে আসার পর খুশির বাতাবরণ রাজ্যের সব মহলেই। মাঝেমধ্যেই অভিযোগ শোনা যায় কেন্দ্র থেকে পর্যাপ্ত টিকা পাওয়া যাচ্ছে না। এমনকি টীকার অভাবে এই রাজ্যের বেশকিছু টিকাদান কেন্দ্র বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। তার পরেও সমীক্ষার এই তথ্যে খুশি রাজ্য সরকার।

error: