মুসলিম লিগের প্রতিনিধিত্ব করতেই 16 আগস্ট খেলা হবে ঘোষণা মমতার : মন্তব্য রাহুল সিনহার



বি.বি নিউজ ডিজিটাল ডেস্ক, 25 জুলাই : “পিছন দরজা দিয়ে উনি ঢুকেছিলেন ৷ হারার পরও মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন পিছন দরজা দিয়ে ৷ এখন দেখছেন সেই পিছন দরজা দিয়েই ওনাকে বিদায় নিতে হবে ৷ তাই উপনির্বাচন নিয়ে তিনি ছটফট করছেন ৷” শনিবার বর্ধমানে বিজেপির জেলা অফিসে এসে এভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একহাত নিলেন বিজেপি নেতা রাহুল সিনহা।

এদিন তিনি আরও বলেন, “হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন মুখ্যমন্ত্রী । উনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছিলেন ৷ এখন দেখছেন মুখ্যমন্ত্রীর গদিই থাকবে না।”

16 অগস্ট খেলা হবে দিবস নিয়েও মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন কটাক্ষ করেন রাহুল সিনহা ৷ তাঁর কথায়, “ভাগ্যিস তিনি 14 অগস্ট দিনটাকে বেছে নেননি । তাহলে পাকিস্তান দিবস পালন করা হয়ে যেত।”

এরপর তিনি 16 অগস্ট খেলা হবে দিবসের ব্যাখ্যা করে বলেন, “যেহেতু 1946 সালের 16 অগস্ট মুসলিম লিগ ডাইরেক্ট অ্যাকশনের ডাক দিয়েছিল। সেই গ্রেট অনার কিলিংয়ের জেরে কলকাতার রাজপথ রক্তে লাল হয়ে গিয়েছিল। সেই মুসলিম লিগ আজ নেই। পরিবর্তে আছে তৃণমূল লিগ। তাই মুসলিম লিগের পরিবর্তে এখন তৃণমূল লিগ দিনটা পালনের চেষ্টা করছে । সেই অপস্মৃতিকে সামনে আনার চেষ্টা করছে । যার ফলে আমরা চিন্তিত।”

খেলা হবে দিবস-সহ একাধিক ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেন রাহুল সিনহা। বিধানসভা নির্বাচনে নন্দীগ্রাম প্রসঙ্গ তুলে ধরে এদিন রাহুল সিনহা বলেন, নন্দীগ্রামের রায়কে উপেক্ষা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী । নন্দীগ্রামের মানুষকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পিছনের দরজা দিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে বসেছেন। সেই নন্দীগ্রামের মানুষ, বাংলার মানুষ তাকে পিছনের দরজা দিয়ে টেনে বাইরে আনবে । এটাই ভবিতব্য।”

error: