ছয়বার চেষ্টার পর সাফল্য! কনস্টেবল থেকে দিল্লি পুলিশের ACP হয়ে তাক লাগালেন ফিরোজ আলম



 

বিবি নিউজ ডিজিটাল ডেস্কঃ কঠোর পরিশ্রমই সাফল্যের একমাত্র মন্ত্র। পরিশ্রমের কোন বিকল্প নেই। তার অন্যতম উদাহরণ হল আজকের দিল্লি পুলিশের এসিপি ফিরোজ আলম। ফিরোজ আলমের বাড়ি উত্তরপ্রদেশের হাপুর জেলার পিলখুয়া শহরে। ছ’বার চেষ্টা করার পর ২০১৯ সালে সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় সাফল্য অর্জন করেন তিনি।

এর আগে দশ বছর দিল্লি পুলিশের কনস্টেবল পদে ছিলেন তিনি। ২০২১ সালে তাকে সহকারী পুলিশ কমিশনার (এসিপি) পদে পদোন্নতি দেওয়া হয়। ফিরোজ আলম জানান, “ছ’বছর পরীক্ষায় অংশ নিয়েছি, মেইনসে চারবার কোয়ালিফাইও করেছি তবে তারপর আর ইন্টারভিউয়ে অগ্রসর হতে পারিনি।” তিনি আরও বলেন, ‘সিদ্ধান্ত নিলাম যে এই বছর আরেকবার চেষ্টা করব আর এই শেষবার’।

কনস্টেবল থেকে এসিপিতে তাঁর জার্নি সম্পর্কে আরও বলতে গিয়ে তিনি বলেন, ২০১০ সালে দিল্লি পুলিশের কনস্টেবল পদে যোগদান করেন। তবে ইউপিএসসি’র পড়া বন্ধ করেনি এবং লক্ষ্য ছিল স্থির। লক্ষ্য স্থির থাকলে তাকে ভেদও করা যায়। অবশেষে, ২০২১-র এপ্রিলে আইপিএস অফিসার হওয়ার স্বপ্নটি উপলব্ধি করতে সক্ষম হন তিনি।

দিল্লি পুলিশের ডিসিপি হরেন্দ্র কে সিং বুধবার টুইট করেছেন, ‘তিনি ২০১১ সালে দিল্লি পুলিশের কনস্টেবল হিসাবে যোগদান করেছিলেন, এটি তার স্বপ্ন সিভিল সার্ভিসের যোগ্যতা অর্জনের নেতৃত্ব দিয়েছে। ফিরোজ আলম এখন দিল্লি পুলিশের এসিপি হিসাবে যোগদান করবেন এবং আগামীকাল থেকে তাঁর প্রশিক্ষণ শুরু হবে। স্বপ্নে কখনও বয়স হয় না, পূরণের আকাঙ্ক্ষা তরুণ হতে হয়।অন্য একটি টুইটে সিং বলেছেন, আলমের কৃতিত্ব হল কোনও কোম্পানির করণিক থেকে ম্যানেজিং ডিরেক্টর (এমডি) হওয়ার মত’।

error: