রাজধানী দিল্লির রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের মসজিদ গুঁড়িয়ে দিলো দিল্লি পুলিশ



বি.বি নিউজ ডিজিটাল ডেস্ক: রাজধানী নতুন দিল্লির পুলিশ এবং বেসামরিক কর্তৃপক্ষ সেখানে অবস্থিত একটি রোহিঙ্গা ক্যাম্পের অস্থায়ী একটি মসজিদ গুড়িয়ে দিয়েছে। এক সপ্তাহ আগে ওই শিবিরে বড় ধরনের অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছিল।

রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের মসজিদ গুঁড়িয়ে দিলো দিল্লি পুলিশ বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টার দিকে টারপলিন শিট এবং বাঁশ দিয়ে তৈরি মসজিদটি গুড়িয়ে দেয়া হয়। ওই শিবিরটি উত্তরপ্রদেশের সঙ্গে লাগোয়া দিল্লির দক্ষিণে মদনপুর খাদের এলাকায় অবস্থিত।

শরণার্থীরা জানায়, তারা মসজিদটি গুড়িয়ে না দিতে কর্তৃপক্ষের আবেদন জানানোর পরও তারা এমনটা করেছে। শিবিরটিতে প্রায় ৩০০ শরণার্থী রয়েছে। যাদের অধিকাংশই বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ মিয়ানমার থেকে প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে ভারতে আশ্রয় নেয়।

রোহিঙ্গা শরণার্থীরা বলছে, এখন তাদের নামাজ আদায়ের কোনও স্থান নেই। ৩৩ বছর বয়সী রোহিঙ্গা যুবক মোহাম্মদ বলেন, ফজর নামাজের কয়েক ঘণ্টা পর মসজিদটি ভেঙে দেয়ার কাজ শুরু হয়।

তিনি বলেন, প্রথমে তারা টয়লেট এবং ওয়াশরুমগুলো ভেঙে ফেলে। পরে তারা পানির কল উপড়ে ফেলে। এর ১০ মিনিটের মধ্যেই মসজিদটি গুড়িয়ে দেয়া হয়।

মোহাম্মদ বলেন, শরণার্থীরা প্রতিবাদের চেষ্টা করলে কর্মকর্তারা জানায় তারা ‘অবৈধ অভিবাসী’ যারা একটি ‘জমি দখল’ করে বাস করছে। তিনি বলেন, আমরা অনেক বোঝাতে চেয়েও ব্যর্থ হয়েছি।

সূত্র: আলজাজিরা

error: