মুর্শিদাবাদ জেলা জুড়ে পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ কর্মসূচি



জৈদুল সেখ, কান্দি: মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে অনুষ্ঠিত হলো সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ অনুষ্ঠান। বুধবার বহরমপুর রবীন্দ্র সদনে মুর্শিদাবাদ জেলা পুলিশের উদ্যোগে সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হলো। এদিন সকাল থেকে ডোমকল, কান্দি, লালবাগ, বেলডাঙা থানা থেকে বাইক রেলির মাধ্যমে সাধারণ মানুষকে সচেতন করা হয়। যেভাবে দিনের-পর-দিন দুর্ঘটনা বেড়ে চলেছে সেকারণেই মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে রাজ্যে প্রতিটা জেলা পুলিশের উদ্যোগে সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ মানুষকে সচেতন করতে পালন করা হচ্ছে। আজ এই অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সাধারণ মানুষকে গাড়ি চালানোর সচেতনতা দেওয়া হয়। এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত মুর্শিদাবাদের জেলাশাসক শরৎকুমার দ্বিবেদী মুর্শিদাবাদ পুলিশ সুপার কে শবরী রাজকুমার, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক সন্দ্বীপ সান্যাল, বহরমপুর মহকুমা শাসক প্রভাত চ্যাটার্জী, অতিরিক্ত জেলা শাসক সিরাজ দানেশ্বর, বিধায়ক নিয়ামত শেখ, সৌমিক হোসেন, হাসানুজ্জামান, রবিউল আলম চৌধুরী, মমতাজ শাহিনা বেগম। বিভিন্ন স্কুল থেকেও ছাত্রছাত্রীরা আজকের অনুষ্ঠানে যোগদান করে সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে সচেতনতার বার্তা দেয়।

উল্লেখ্য সারা রাজ্য জুড়ে দুর্ঘটনার সংখ্যা কমিয়ে আনতেই এই বিশেষ উদ্যোগ বলে জানা গেছে। কয়েক বছরে যেভাবে পথ-দুর্ঘটনা, বিশেষ করে বাইক দুর্ঘটনা বেড়ে গিয়েছিল, বর্তমানে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে বলে সরকারি পরিসংখ্যান থেকে জানা গেছে। আর রাজ্য সরকারের ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ ” প্রকল্পের পরই যে এই দুর্ঘটনার সংখ্যা কমেছে প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে। ২০১৬ সালের জুলাই মাসে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি গাড়িচালক ও পথচারীদের নিরাপত্তার কথা ভেবে এই ‘সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ’প্রকল্পটি চালু করেন। এ নিয়ে বেশ কয়েক মাস ধরে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে ব্যাপকভাবে প্রচার অভিযান চালানাে হয়। মিটিং, মিছিল, শােভাযাত্রা, বিভিন্ন অনুষ্ঠানমঞ্চ থেকেও বাইক আরােহীদের হেলমেট পরা-সহ বিভিন্ন পথ-নিরাপত্তা বিধি নিয়ে আওয়াজ তােলা হয়। এমনকি রাস্তার মােড়ে মােড়ে বড় বড় ব্যানার, পােস্টার দেওয়া হয়। পরিসংখ্যান বলছে, জাতীয় সড়কে দুর্ঘটনার সংখ্যা বেশি। এই অভিযান সফল করতে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া শুরু হয়েছে। জরিমানার পাশাপাশি গ্রেফতারের সংখ্যা বেড়েছে। ট্রাফিক কর্তারাও যাতে ব্যবস্থা নিতে পারেন, সেজন্য পরিকাঠামাে গড়ে তােলার উপর জোর দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে কান্দি মহকুমা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগেও বুধবার কান্দি বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ এর প্রচার অভিযান এবং সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ দিবস উদযাপন করা হল। কান্দি মহকুমা শাসক নবীন কুমার চন্দ্রার উপস্থিতিতে কান্দি বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন এলাকায় একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি সেভ ড্রাইভ সেভ লাইফ এর প্রচার অভিযান করতে কান্দি মহকুমা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে মোটর বাইক রেলি আয়োজন করা হয়েছিল। এদিনের এই কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন কান্দি মহকুমা শাসক নবীন কুমার চন্দ্রা, কান্দি মহকুমা আরক্ষা আধিকারিক সান্তনু সেন, কান্দি থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক সুভাষ চন্দ্র ঘোষ, কান্দি মহকুমা ট্রাফিক ইনচার্জ পলাশ মন্ডল, কান্দি বিধানসভার বিধায়ক অপূর্ব সরকার, ভরতপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক হুমায়ুন কবির, খড়গ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক আসিস মার্জিত সহ একাধিক বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।
এছাড়াও জঙ্গীপুর পুলিশ জেলার উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো সেফ ড্রাইভ, সেভ লাইফ কর্মসূচী ও বিনামূল্যে চক্ষু চিকিতসা শিবির। বুধবার মুর্মিদাবাদের সুতি থানার ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক সংলগ্ন মহেশাইল মোড়ে বাইক আরোহীদের হেলমেট বিতরনের মাধ্যমে সচেতনতার বার্তা দেওয়া হয় জনসাধারণ কে এবং স্হানীয় মানুষদের জন্য বিনামূল্যে চক্ষু চিকিতসা ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। চক্ষু চিকিৎসা ক্যাম্পের উদ্ধধন করেন জঙ্গীপুর পুলিশ জেলার সুপার ওয়াই রঘুবংশী। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন সুতি বিধানসভার বিধায়ক ইমানি বিশ্বাস, Add, SP মীর সাকির আলি, জঙ্গীপুর জেলার ট্রাফিক SP আব্দুল কায়ুম আলি এস সুতি থানার OC বিপ্লব কর্মকার সহ একাধিক বিশিষ্ট জনেরা। এদিন জেলা পুলিস সুপার ওয়াই রঘুবংশী পথ দূর্ঘটনা এড়াতে কি কি করনীয় আর কি কি করা যাবেনা তার বিস্তারিত বর্ননা করেন। পাসাপাসি এদিন পুলিস কর্মীদের সজাগ থাকার বার্তা দেন।

error: